বিশ্বের ৮৬ শতাংশ ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ভুয়া সংবাদের শিকার

Sharing is caring!

ভুয়া খবর ইস্যুটি বাংলাদেশের জন্য নতুন কিছু নয়। কয়েকদিন পর পরই ভুয়া সংবাদ আমরা দেখতে পাই। বিশেষ করে মৃত্যুর আগেই কারও মৃত্যু নিয়ে সংবাদ প্রকাশ এখন যেন স্বাভাবিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে শুধু বাংলাদেশে নয়, ভুয়া সংবাদের জয়জয়কার বিশ্বজুড়ে।সম্প্রতি ২৫টি দেশের ২৫ হাজার মানুষকে নিয়ে সমীক্ষা চালিয়েছিল একটি মার্কিন জরিপকারী প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল গভারন্যান্স এসোসিয়েশন (সিআইজিআই)।গত বছরের ২১ ডিসেম্বর থেকে এই বছরের ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চালানো সেই সমীক্ষায় দেখা গেছে, বিশ্বের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের মধ্যে ৮৬ শতাংশই ভুয়া খবরের শিকার হয়ে চলেছেন। এসব খবরের বেশিরভাগই ছড়াচ্ছে ফেসবুকে। এছাড়া ইউটিউব, টুইটার এবং ব্লগেও ভুয়া খবর ছড়াচ্ছে।সমীক্ষা বলছে, বেশিরভাগ ভুয়া খবর ছড়াচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে। তারপরই আছে রাশিয়া এবং চীন। ভুয়া খবরে প্রতারিত হতে হতে ইন্টারনেটের ওপরে ক্রমশ আস্থা হারাচ্ছে সাধারণ মানুষ। তার প্রভাব পড়ছে অর্থনীতি ও রাজনৈতিক চর্চায়।সরকার ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর অবিলম্বে এ বিষয়ে সক্রিয় হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছে সিআইজিআই। প্রতিষ্ঠানটির মুখপাত্র ফেন অসলার হ্যাম্পসন বলেন, এ বছরের সমীক্ষা শুধু ইন্টারনেট কতটা ভঙ্গুর, সেই প্রশ্নটাই তুলে ধরেনি। দেখা গেছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো দৈনন্দিন জীবনে তথা ব্যক্তি-পরিসরে যেভাবে ছড়ি ঘোরাচ্ছে তা নিয়ে প্রবল অস্বস্তিতে আছে সাধারণ মানুষ।

About banglarmukh official

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*