দেশ পরিচালনা নিয়ে আমীর খসরুর প্রশ্ন

Sharing is caring!

কোনো রাজনীতিবিদ বা রাজনৈতিক চিন্তাধারা থেকে বাংলাদেশ পরিচালিত হচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের গণতন্ত্রের মাকে জেলে রেখে, জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে, বাকস্বাধীনতা কেড়ে নিয়ে, আইনের শাসন কেড়ে নিয়ে এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতা কেড়ে নিয়ে তারা মনে করেছিল অব্যাহতভাবে দেশ পরিচালনা করবে। কিন্তু দেশ চলছে না।

বুধবার (৭ আগস্ট) জাতীয় প্রেস ক্লাবে জিয়া পরিষদ আয়োজিত ‘খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি’র দাবিতে আলোচনা সভায় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

খসরু বলেন, বাংলাদেশের মানুষ তাদের (আওয়ামী লীগ) দায়িত্ব দেয়নি। তারা জোর করে ক্ষমতা দখল করেছে জনগণকে বাইরে রেখে। তারপরও আজ যখন দেশ চলছে না, তখন গুজবের বাহানায়, বিরোধী দলের ষড়যন্ত্র- এমন বাহানায় পার পাওয়ার চেষ্টা করছে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে ডেঙ্গু যে মহামারিতে পরিণত হয়েছে, এটা কি বিতর্কের কোনো বিষয়? নির্বাচন কমিশনের ফলাফল দেয়ার পরে বাংলাদেশে যে কোনো নির্বাচন হয়নি, এটা নিয়ে কি কোনো বিতর্ক আছে? বাংলাদেশে আজ আইনের শাসন নেই, এটা নিয়ে কি কোনো বিতর্ক আছে? একটি দেশের প্রধান বিচারপতির চাকরি জোর করে কেড়ে নেয়া হয়েছে এবং জোর করে দেশের বাইরে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে, এটা নিয়ে কি কোনো বিতর্ক আছে? বাংলাদেশে আজ যে বাকস্বাধীনতা নেই- এটা বিশ্ব জানে।

দেশনেত্রীকে মুক্ত করতে হলে সংগ্রামে যেতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আজ বিএনপির ২৬ লাখ নেতাকর্মীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে বাড়ি-ঘরে থাকতে দেয়া হচ্ছে না। তাদের নিয়ে কি এদের কোনো চিন্তা আছে? এই যে মিথ্যা মামলায় যারা মানবেতর জীবনযাপন করছে, তাদের নিয়েই আমাদের চিন্তা। দেশনেত্রীর মুক্তির সঙ্গে বাংলাদেশের মানুষের মুক্তি অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। সুতরাং কোনো দলের ব্যাপার নয়, বিএনপির ব্যাপার নয়- এটা সব জাতির ব্যাপার। দেশনেত্রীর মুক্তির জন্য আমাদের সংগ্রাম করে যেতে হবে। সংগ্রামের মাধ্যমে তাকে মুক্ত করতে হবে।

আলোচনা সভায় বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. আব্দুল কুদ্দুস, জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

About banglarmukh official

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*