ফিফার বর্ষসেরার দৌড়েও মেসি-রোনালদোর সঙ্গে ফন ডিক

Sharing is caring!

গত সপ্তাহেই ইউরোপের সেরা ফুটবলারের পুরস্কার জিতে নিয়েছেন গ্রহের সেরা দুই খেলোয়াড় লিওনেল মেসি এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে পেছনে ফেলে। ফ্রান্সের মোনাকোয় উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ড্র অনুষ্ঠানেই উয়েফা বর্ষসেরার পুরস্কার উঠলো লিভারপুলের ডাচ ডিফেন্ডার ভিরগিল ফন ডিকের হাতে।

এবার হয়তো বা আরও একটি পুরস্কার জিততে যাচ্ছেন নেদারল্যান্ডসের এই ডিফেন্ডার। ফুটবলারদের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত অর্জনের স্বীকৃতি ফিফা বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার। লিওনেল মেসি এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে যে তৃতীয়জন হিসেবে সংক্ষিপ্ত তালিকায় উঠে এসেছে ফন ডিকের নামও!

ইংলিশ ক্লাব লিভারপুলকে গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতাতে সবচেয়ে বড় ভূমিকাই পালন করেন এই ডিফেন্ডার। ফন ডিককে ফাঁকি দিয়ে কেউ লিভারপুলের জালে বল প্রবেশ করাবে- এটা যেন স্বপ্নেও চিন্তা করা যায় না। যে কারণে, ইউরোপের সর্বোচ্চ টুর্নামেন্টটির শিরোপা দীর্ঘদিন পর উঠেছে লিভারপুলের হাতে।

গত মৌসুমে বার্সার জার্সি পরে ৫০ ম্যাচে ৫১ গোল করেছিলেন লিওনেল মেসি। বার্সার লা লিগা জয়ে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখেন তিনিই। অন্যদিকে পর্তুগিজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন নতুন ক্লাব জুভেন্টাসকে সিরি ‘এ’ শিরোপা জেতাতে। শুধু তাই নয়, দেশের জার্সিতে তিনি জয় করেছেন উয়েফা নেশনস লিগও।

এক দশকেরও বেশি সময় ধরে বর্ষসেরা ফুটবলারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় এই দুই মহা তারকার নাম যেন অবধারিতভাবেই থাকছে। পাশাপাশি তৃতীয় ফুটবলার হিসেবে আসে অন্য কারো নাম। এবার বর্ষসেরার দৌড়ে মেসি-রোনালদোর সঙ্গে জায়গা করে নিলেন ২০১৮-১৯ লিভারপুলের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের অন্যতম নায়ক ফন ডিক।

গত বছর মেসি-রোনালদোকে পেছনে ফেলে ফিফা বর্ষসেরার পুরস্কার জিতেছিলেন রিয়ালের ক্রোয়েশিয়ান তারকা লুকা মদ্রিচ। বিশ্বকাপে নিজ দেশকে তুলেছিলেন ফাইনালে। এছাড়া রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে ২০১৭-১৮ চ্যম্পিয়ন্স লিগে অনবদ্য পারফরম্যান্সের জন্যই তাকে বর্ষসেরার পুরস্কারে ভূষিত করা হয়।

কিন্তু গত মৌসুমে খুবই বাজে খেলার কারণে এবার প্রথম দশেও জায়গা করে নিতে পারেননি মদ্রিচ। সেরা তিনজনের নাম থেকে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর ঘোষণা করা হবে বর্ষসেরার নাম। মেসি-রোনালদোকে পেছনে ফেলে এবারও কি তবে বাজিমাত করবেন ডাচ ডিফেন্ডার ফন ডিক? অপেক্ষা আর কয়েকদিনের। জাতীয় দলের কোচ-অধিনায়কদের ভোট, পাশাপাশি নির্বাচিত কিছু মিডিয়া ও সমর্থকদের অনলাইন ভোটিংয়ের মাধ্যমে বেছে নেওয়া হবে এ বছরের সেরা ফুটবলারকে।

সেরা ফুটবলারের পাশাপাশি সেরা কোচের দৌড়ে রয়েছেন প্রিমিয়র লিগের তিনজন। তালিকায় রয়েছেন লিভারপুলকে ইউরোপ সেরা করা ইয়ুর্গেন ক্লুপ, গত মৌসুমে ম্যানচেস্টার সিটিকে ত্রিমুকুট এনে দেওয়া পেপ গার্দিওলা এবং টটেনহ্যাম কোচ মৌরিসিও পোচেত্তিনো।

সেরা গোলরক্ষকের দৌড়ে লিভারপুলের অ্যালিসন বেকারের সঙ্গে রয়েছেন ম্যানসিটির এডারসন ও বার্সেলোনার টার স্টেগান। সতীর্থ অ্যালেক্স মরগ্যান, ইংলিশ ফরোয়ার্ড লুসি ব্রোঞ্জের সঙ্গে বর্ষসেরা নারী ফুটবলার হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের মেগান র‌্যাপিনো।

Print Friendly, PDF & Email

About banglarmukh official

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*