‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অবিশ্বাসীদের প্রত্যাখ্যান করুন’ : গণপূর্তমন্ত্রী

Sharing is caring!

গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ.ম রেজাউল করিম বলেছেন, যারা পেট্রোল বোমা মেরে শিশুদের মারে, যারা স্কুল-কলেজসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পুড়িয়েছে, তারা দেশের বন্ধু হতে পারে না। যারা দেশের স্বাধীনতার বিরোধীতা করেছিলো ও স্বাধীনতার ৪৮ বছর পরও এ দেশকে মেনে নিতে পারেনা, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বিশ্বাস করেনা তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করতে হবে। বঙ্গবন্ধু’র কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই একমাত্র এদেশের মুক্তিযোদ্ধাদের, যাদের বাড়ি-ঘর নেই তাদের বাড়ি-ঘর নির্মান করে দেয়াসহ ভাতা প্রদান করেছেন। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করবেন।

শুক্রবার সকালে উপজেলার ডাকবাংলো চত্বরে উপজেলা অবকাঠামো উন্নয়ন শীর্ষক মতবিনিময় সভায় এ সব কথা বলেন মন্ত্রী।

এ সময় তিনি উপস্থিত জন প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্য করে বলেন, ব্যক্তি বিশেষের সন্তুষ্টির জন্য রাজনীতি করবেন না, জনগনের সার্বিক উন্নয়নের চিন্তা করে কাজ করবেন। আপনারা ও আমি একই জনগনের ভোট নিয়ে জন প্রতিনিধি হয়েছি। এলাকার প্রত্যেকটি মানুষের খোঁজ-খবর রাখবেন। আমরা জনগনের সেবক। মনে রাখবেন মৃত্যু নিশ্চিত, সময়টা অনিশ্চিত। তাই কোন প্রকার দুর্নীতি বা বিশাল বিত্ত-বৈভবের মালিক হওয়ার প্রয়োজন নেই।

এসময় তিনি বলেন, আমি অনুন্নত ও অবহেলিত এ এলাকার উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে ব্যাক্তিগতভাবে কথা বলে এখানের (পিরোজপুর-১) উন্নয়নের জন্য সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকার বরাদ্দ করিয়েছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোজী আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন পরিকল্পনা মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব আক্তারুজ্জামান খান কবির, এলজিইডি’র তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ও প্রকল্প পরিচালক (বিজেপি) কাজী মিজানুর রহমান, জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান, এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী সুশান্ত রঞ্জন রায়, উপজেলা চেয়ারম্যান অমূল্য রঞ্জন হালদার, উপজেলা আ’লগি সাধারন সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন খান, উপজেলার ৯ টি ইউপি’র চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যবৃন্দ।

এ সময় উপজেলার ৩নং দেউলবাড়ি দোবরা ইউপি চেয়ারম্যান মাষ্টার অলিউল্লাহ বলেন, তার ইউনিয়নে এখানো পাকা সড়ক নেই। তাই সারা বছরই স্থানীয়দেরকে নৌকায় করে চলাচল করতে হয়। তাই তিনি তার এলাকার উন্নয়নে পাকা সড়কের দাবি করেন।

এ সময় বিভিন্ন ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বাররা আওয়ামী লীগের গত ১০ বছরে নাজিরপুরে কাঙ্খিত উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হয়েছে বলে অভিযোগ করেন। মন্ত্রী এ সময় উপজেলার সকল ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের কাছ থেকে নিজ নিজ এলাকার প্রয়োজনীয় উন্নয়ন প্রকল্পের তালিকা গ্রহন করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন এলজিইজির নির্বাহী প্রকৌশলী বিশ্বনাথ বনিক, পিরোজপুর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এসএম বায়েজিদ হোসেন, জেলা পরিষদের সদস্য সুলতান মাহামুদ খান, ঢাকা মহানগর দক্ষিন ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এম সাইফুল ইসলাম সাইফ, কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় নেতা আতিয়ার রহমান চৌধুরী নান্নু, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ আ. লতিফ প্রমুখ।

About banglarmukh official

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*