বরিশালে কালভার্ট আটকে ভবন নির্মাণ, একটি পরিবারের জন্য পানিবন্দি গোটা এলাকা

Sharing is caring!

নিজস্ব প্রতিবেদক ::

বরিশাল সদর উপজেলার লাহারহাট সড়কের পাশে কালভার্ট আটকে একটি ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। সাহেবেরহাট বাজার লাগোয়া সিঙ্গাপুর প্রবাসী লিটনের ‘ফিদেল ভবন’টির কারণে পানি চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় গোটা এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ সড়কের উত্তর দক্ষিণ পার্শ্বের আবাসিক বাড়িগুলোতে হাটুসমান পানি জমে রয়েছে। সেখানকার বাসিন্দারা পানিবন্দি হয়ে পড়ায় বিষয়টি নিয়ে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

ফলে এই বিষয়টি এখন বরিশাল সদর আসনের সাংসদ পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অবসরপ্রাপ্ত) জাহিদ ফারুক শামীম পর্যন্ত গড়িয়েছে। সম্প্রতি স্থানীয় বাসিন্দাদের পক্ষে জনপ্রতিনিধিরা বিষয়টি প্রতিমন্ত্রীকে অবহিত করে স্থায়ী সমাধান চেয়েছেন। অবশ্য প্রতিমন্ত্রীও সমস্যা দুরকরণে উদ্যোগ গ্রহণের পথ বাতলে দিয়েছেন।

নিশ্চিত হওয়া গেছে- প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক শামীমের নির্দেশনার আলোকে শুক্রবার বিকেলে বরিশাল উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার অলি উল্লাহ সরেজমিন পরিদর্শন করেছেন। এবং যাতে করে আগামীতে পানি চলাচলের পথটি উন্মুক্ত করে দিতে ‘ফিদেল ভবন’র মালিক সিঙ্গাপুর প্রবাসী লিটনের পরিবারকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে নির্দেশ দিয়েছেন। নতুবা ভবনটির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছে- বছরখানেক আগে কালভার্টের মুখে প্রবাসী লিটন ভবনটি নির্মাণ করেন। ওই সময় তাকে স্থানীয়দের জনপ্রতিনিধিরা পানি সরবরাহের পথ উন্মুক্ত রেখে কাজ করার অনুরোধ করেন।

সংশ্লিষ্ট টুঙ্গিবাড়িয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বাহাউদ্দিন আহম্মেদ অভিযোগ করেন- প্রথমে পানি চলাচলের জন্য কালভার্টের মুখটি উন্মুক্ত রাখলেও কিছুদিন পরে তাও মাটি দিয়ে ভরাট করে দেওয়া হয়। এই কারণে পানি সরবরাহ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় গোটা এলাকায় জলাবদ্ধতা তৈরি হয়েছে, পানিবন্দি হয়ে পড়েছে সড়কে দুই পাশে কয়েক শ’ পরিবার।
কয়েকদিনের বর্ষণে জলাবদ্ধতা বেড়ে যাওয়ায় সাহেবেরহাট বাজারসহ আশপাশ এলাকায় জনসাধারণ চলাচলে সীমাহীন ভোগান্তি দেখা দিলে বিষয়টি বরিশাল সদর আসনের এমপি পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীকে অবহিত করা হয়। পরবর্তীতে তিনি বিষয়টি এই বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখতে বরিশাল সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান মধুকে সরেজমিন পরিদর্শন করে রিপোর্ট দিতে নির্দেশ দেন।

মুলত ভাইস চেয়ারম্যানের কাছ থেকে বিষয়টি অবহিত হওয়ার পরেই প্রতিমন্ত্রী উপজেলা প্রশাসনকে সরেজমিন পরিদর্শনে নির্দেশ দিলে শুক্রবার সেখানে ছুটে যান উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার অলি উল্লাহ। অবশ্য এসময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহাবুবুর রহমান মধু এবং ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বাহাউদ্দিন আহম্মেদসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।

বরিশাল সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান মধু জানিয়েছেন- সরেজমিন পরিদর্শনে প্রতীয়মাণ হয়েছে ভবনটির কারণে কালভার্টটি দিয়ে পানি সরবরাহ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেছে। যে কারণে ভবন মালিকের পরিবারকে মাটি কেটে সরিয়ে দিয়ে পানি চলাচলে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের এই নিদের্শনার বিষয়টিও না মানলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Print Friendly, PDF & Email

About banglarmukh official

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*