‘অবতার’র মত চলচ্চিত্র মুক্তি পেলে বাঁচবে সিনেমা হল’

Sharing is caring!

শুক্রবার (০১ নভেম্বর) বরিশাল নগরীর অভিরুচি সিনেমা হলে প্রদর্শিত হয়েছে মাহমুদ হাসান শিকদার পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘অবতার’। চলবে আগামী শুক্রবার পর্যন্ত। হল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন ‘অবতার’ সিনেমা ভালমানের, দর্শকের উপস্থিতিও বেশ। এমন সিনেমা প্রতিমাসে অন্তত একটি মুক্তি পেলেও তাদের ব্যবসা টিকে থাকবে বলে জানান হলের ম্যানেজার পায়রা-মানব নামে খ্যাত রেজাউল কবির। নতুবা বরিশালের অন্যান্য সিনেমা হলের মত এই সিনেমা হলটিও গুগল ম্যাপ থেকে মুছে যাবে।

রেজাউল কবির আরো বলেন, বাংলাদেশে নিয়মিত ভালোমানের সিনেমা মুক্তি না পাওয়ায় দর্শক হল মুখি হচ্ছে না। অবতারের মত সিনেমা বছরে ১০/১২টা মুক্তি পেলেও আমাদের ব্যবসা টিকে থাকবে। নয়তো ভারত-বাংলাদেশের যৌথ সিনেমায় ভর করে চলতে হবে। তাই আমরা বলবো বাংলা সিনেমা হলে এসে দেখতে।

বরিশালের একমাত্র এই হলে ‘অবতার’ মুক্তির পরপরই দর্শকদের উচ্ছাস ছিলো তুঙ্গে। অনেকেই সিনেমা দেখে জানিয়েছেন অভিব্যক্তি। কেউ কেউ অনুভূতি প্রকাশ করেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। পরিচালককে জানিয়েছেন ধন্যবাদ।

দর্শক অনিকেত মাসুদ জানিয়েছেন, গল্প চিরায়ত। সৃষ্টির শুরু থেকেই ভালো আর মন্দের যুদ্ধ। সাবজেক্ট সমসাময়িক মাদকের ভয়াবহতা। মাদক ব্যবসায়ীদের ভয়ানক শক্তির বিরুদ্ধে আগমন একজন অবতারের। পুরো চলচ্চিত্রটাকে কাল্পনিক দুই ভাগে করা যায় এই ভাবে, প্রথমার্ধ অবতার প্রাইম আর শেষ অংশ অবতার কনক্লুলেশন। অনেকগুলো জটিল অংকের সমাধান পাওয়া যায় চলচ্চিত্রটির শেষ অংকে। গল্পটার সক্ষমতা আছে দর্শক ধরে রাখার।

কমপ্লিট ফিল্মের সবগুলো উপাদান এখানে বিদ্যমান। গানগুলো ভালো হয়েছে। মনে লেগে থাকার মতো। টাইটেল সং থেকে শুরু করে আইটেম সং, রোমান্টিক সং, সুফী ভাবধারার গানগুলোর কথা, সুর ও কম্পোজিশন উচু মানের। ফাইটিং গতানুগতিক। তামিল বা হিন্দি সিনেমার সাথে তুলনা করলে পরিচালকের প্রতি অবিচার করা হবে।

সুফী গানের সাথে দৃশপট কিছুটা অসামঞ্জস্য মনে হয়েছে। লোকেশনের যথেষ্ট ভেরিয়েশন আছে। পুরো সিনেমাটায় গতি আছে। নির্মাণশৈলী ব্যাকরণ সম্মত ও দৃষ্টি নন্দন।

অভিনয়ে রয়েছেন, মাহিয়া মাহি, আমিন খান, রাইসুল ইসলাম আসাদ, মিশা সওদাগর, সিবা সানুসহ সবাই যার যার জায়গা থেকে সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করেছেন। নায়ক জেএইচ রুশোর নবাগত নায়ক হিসেবে অবশ্য ভালই করেছেন।

সবকিছু মিলিয়ে অনেক দিন পর সিনেমা হলে বসে পুরো চলচ্চিত্র দারুণভাবে উপভোগ করার জন্য ধন্যবাদ প্রাপ্য টিম অবতারের। গল্পের বাকি অংশ জানা ও দারুণ সময় উপভোগ করার জন্য দর্শককে অবশ্যই সিনেমা হলে গিয়ে অবতার দেখতে হবে। অবতারে সময়টা আপনার ভালোই কাটবে। জয় হোক দেশিয় বাংলা চলচ্চিত্রের।’

Print Friendly, PDF & Email

About banglarmukh official

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*