এবার মিথিলা-ফাহমির নামে ভিডিও ভাইরাল, নেয়া হচ্ছে আইনি ব্যবস্থা

Sharing is caring!

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভিনেত্রী মিথিলা ও নির্মাতা ইফতেখার আহমেদ ফাহমির অন্তরঙ্গ ছবি ভাইরাল হয়েছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যা থেকেই ফেসবুকের বেশকিছু গ্রুপে ছড়িয়ে পড়ে কয়েকটি ছবি। যেখানে ফাহমির সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখা গেছে মিথিলাকে।

পরে জানা যায়, ফাহমির ফেসবুক পেজটি হ্যাক করা হয়েছে। সেই পেজ থেকেই ছড়ানো হয়েছে ছবিগুলো। সেই সঙ্গে বিভ্রান্তি ছড়ানো নানা মন্তব্যও করা হচ্ছে পেজ থেকে।

সেই উত্তাপে নতুন করে আজ মঙ্গলবার থেকে ছড়িয়ে পড়েছে মিথিলা-ফাহমির নামে কিছু অশ্লীল ভিডিও। মূলত এগুলো সবই ভুয়া ভিডিও বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। বিভিন্ন পর্নো সাইট থেকে ডাউনলোড করে মিথিলা ও ফাহমির নামে প্রচার করা হচ্ছে ভিডিওগুলো। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

এদিকে জানা গেছে, হ্যাক হওয়া পেজ উদ্ধার করতে আইনি ব্যবস্থা নিচ্ছেন ইফতেখার আহমেদ ফাহমি। তার ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, দ্রুতই পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিটের সাহায্য নেবেন এই নির্মাতা। করবেন জিডি।

কে বা কারা পেজ হ্যাকিংয়ের সঙ্গে জড়িত আপাতত অনুমানের ভিত্তিতে সেটি যাচাই-বাছাইয়ের চেষ্টা চলছে। আজই আইনিভাবে হ্যাকারদের শনাক্ত করা হতে পারে। সেই সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যারা অশ্লীল ছবি ও ভুয়া ভিডিও ছড়াচ্ছেন তাদেরও নজরদারিতে আনা হবে। বিশেষ করে নানা রকম বানোয়াট তথ্যে মিথ্যা ছবি দিয়ে ভিডিও তৈরি করা ইউটিউবারদের ব্যাপারেও শক্ত অবস্থানে যাচ্ছেন ফাহমি।

ফেসবুকে ছড়ানো ছবি ও ভিডিও প্রচারকারীদের ব্যাপারে কোনো শাস্তির ব্যবস্থা নেয়া হবে কী না এ ব্যাপারে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাইবার ক্রাইমের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা কোনো অভিযোগ এখনো পাইনি। অভিযোগ এলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

তবে গতকাল সন্ধ্যার পর থেকেই মিথিলা-ফাহমি দুজনই ফোন বন্ধ করে রেখছেন। ভাইরাল হওয়া ছবি নিয়ে তারা কোনো মন্তব্য করেননি।

এদিকে জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও নির্মাতার অন্তরঙ্গ ছবি ভাইরাল হওয়ায় শোবিজের মানুষদের মধ্যে দেখা যাচ্ছে ক্ষোভ। কারো আইডি হ্যাক করে ব্যক্তিগত মুহূর্তের ছবি সবার মাঝে ছড়িয়ে দেয়াটাকে গর্হিত অপরাধ বলে দাবি করছেন তারা।

প্রসঙ্গত, গায়ক ও অভিনেতা তাহসান খানের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের পর বেশ কয়েকজনের সঙ্গে অভিনেত্রী, সমাজকর্মী মিথিলার প্রেমের সম্পর্কের গুঞ্জন শোনা যায়। সে তালিকায় ছিলেন ইফতেখার আহমেদ ফাহমি, জন কবির। তবে তাদের সঙ্গে শুধু ‘জাস্ট ফ্রেন্ড’র সম্পর্ক আছে বলেই দাবি করেন মিথিলা।

এরপর গত বছর হঠাৎ করেই কলকাতার পরিচালক সৃজিত মুখার্জির সঙ্গে ভাইরাল হয় মিথিলার প্রেমের খবর। তখনও সৃজিতকে নিজের ভালো বন্ধু বলে দাবি করেন মিথিলা। কিন্তু দিন দিন সৃজিত-মিথিলার সম্পর্ক ডালপালা মেলেছে দুই বাংলায়। তাদের বিয়ে হবে বলেও কলকাতার গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয়েছে। সম্প্রতি নেপালের নাগরকোটের একটি দোকানে দেখা যায় তাদের।

সৃজিতের সঙ্গে যখন তার বিয়ের গুঞ্জন তুঙ্গে তখনই প্রকাশ হলো ফাহমির সঙ্গে মিথিলার অন্তরঙ্গ ছবিগুলো, যা মিথিলাকে রাতারাতি ‘বিতর্কিত তারকা’ হিসেবে নিন্দিত করেছে।

অন্যদিকে নির্মাতা ফাহমি সম্প্রতি ‘কে হবে মাসুদ রানা’ নামক রিয়েলিটি শোয়ের বিচারক হিসেবে প্রতিযোগীদের সঙ্গে বাজে আচরণের কারণে সমালোচনার শিকার হন।

Print Friendly, PDF & Email

About banglarmukh official

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*