অবসরের সময় হয়নি ধোনির

Sharing is caring!

বিশ্বকাপ শুরুর আগে থেকেই আলোচনায় মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসর। বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়েও গুঞ্জন উঠেছিল, ধোনি অবসর নিয়ে নেবেন বিশ্বকাপের পরই। বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে ভারত বিদায় নেয়ার পরপরই ভারতজুড়ে আলোচনার ঝড়, কবে অবসর নেবেন ধোনি?

তবে, যত গুঞ্জন আর আলোচনাই হোক না কেন- ধোনির দীর্ঘদিনের বন্ধু অরুন পান্ডে জানিয়ে দিলেন, এখনই অবসরের চিন্তা নেই তার। তার এখনই নাকি অবসর নেয়ার সময়ই হয়নি।

আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ভারতীয় দলের সঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজগামী বিমানে ধোনি উঠবেন কি না, তা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা-কল্পনা; কিন্তু মাহির দীর্ঘদিনের বন্ধু অরুণ পান্ডে শুক্রবার পিটিআইকে জানান, ‘এখনই অবসর নেওয়ার কোনও পরিকল্পনা নেই ধোনির; কিন্তু তারপরও ধোনির অবসর নিয়ে যে জল্পনা চলছে, তা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক।’

আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য রোববার মুম্বাইয়ে ভারতীয় দল বাছাই করবে নির্বাচক। রোববার দুপুরে আরব সাগরের তীরে ভারতীয় ক্রিকেটের ভবিষ্যত, নাকি অতীত আঁকড়ে পড়ে থাকবেন নির্বাচকরা সে দিকে তাকিয়ে ভারতের ক্রিকেট ভক্ত-সমর্থকরা। সদ্য ৩৮ বছরে পা-দেওয়া ধোনিকে কি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ভারতীয় দলে সুযোগ দেয়া হবে কি না সেটা জানা যাবে সেদিন।

কিন্তু ক্যারিবীয় সফরের দল নির্বাচনের ঠিক আগে ধোনির বন্ধুর এই বক্তব্য বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। বছর পাঁচেক আগে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও সমানতালে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি খেলে চলেছেন ধোনি। এই দুই ফরম্যাটে তার নেতৃত্বেই বিশ্বকাপ জিতেছে ভারত। ২০০৭-এ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের পর ২০১১ সালে কপিল দেবের ২৮ বছর পর দেশকে ওয়ানডে বিশ্বকাপ এনে দেন ধোনি।

ধোনির অবসর নিয়ে তার বন্ধু অরুন পান্ডে বলেন, ‘এই মুহূর্তে অবসর নিয়ে তার কোনো চিন্তা নেই। তার মত একজন গ্রেট ক্রিকেটারের ভবিষ্যৎ নিয়ে এত আলাপ-আলোচনা চলতে থাকাটা দুঃখজনক।’

বিভিন্ন সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় মিডিয়া জানাচ্ছে, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দল নির্বাচনের আগে দু’বারের বিশ্বকাপ জয়ী সাবেক ভারত অধিনায়কের সঙ্গে কথা বলেই সিদ্ধান্ত নেবে এমএসকে প্রাসাদের নির্বাচন কমিটি।’